ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে আগুন।

ভারতে করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী অন্যতম প্রতিষ্ঠান পুনের সিরাম ইনস্টিটিউটে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। আগুন থামাতে দমকলের ১৪টি ইউনিট কাজ করছে। আগুনে ভ্যাকসিন এবং ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্লান্টে কোনো ধরনের ক্ষতিকর প্রভাব পড়বে না বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হচ্ছে।
ভারতের গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটের দিকে সিরাম ইনস্টিটিউট প্রাঙ্গনে নির্মাণাধীন ভবনে আগুন লাগে। ভবনের ভেতরে চারজন আটকা পড়ে। তার মধ্যে তিনজনকে উদ্ধার করা হয়েছে।
সেরাম ইনস্টিটউট অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং অ্যাস্ট্রাজেনেকার গবেষণালব্ধ টিকা কোভিশিল্ড নামে ভারতে তৈরি করছে। পুনেতে প্রায় ১০০ একর জমিতে বৃহত্তম এই টিকা উৎপাদক সংস্থার কারখানা রয়েছে। ভারতসহ বিভিন্ন দেশে করোনার টিকা সরবরাহের দায়িত্ব পেয়েছে সেরাম। উৎপাদনের চাপ সামলাতে মঞ্জরি কমপ্লেক্সে আটটি নতুন ভবন তৈরি হচ্ছে। তারই একটিতে আগুন লেগেছে বলে ভারতীয় গণমাধ্যমে জানানো হয়।
হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, মানজিরি প্লান্টের পঞ্চম ফ্লোরে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। এই ফ্লোরে যক্ষ্মার প্রতিষেধক বিসিজি টিকা সংশ্লিষ্ট কর্মকাণ্ড পরিচালিত হয়।
সেরাম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোভিশিল্ড যেখানে তৈরি হয় সেই জায়গা ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি, সুরক্ষিতই রয়েছে। তারা তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ জানাতে পারেনি।
সেরাম ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক সুরেশ যাদব জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের টিকা কোভিশিল্ড যেখানে উৎপাদন ও মজুদ রাখা হয়েছে সেই স্থান থেকে অনেক দূরে অগ্নিকাণ্ড শুরু হয়েছে।
মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ের তরফে জারি করা এক নোটিশে বলা হয়েছে, ‘মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে পুনে মিউনিসিপ্যাল কমিশনারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন আর মাঠ পর্যায়ের সবশেষ অগ্রগতি জেনে নিচ্ছেনস। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তিনি রাজ্য সরকারের সব সংস্থাকে সমন্বয় করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*