এএসপি হত্যা মামলায় পুলিশের তদন্তে আস্থা নেই চিকিৎসকদের।

এএসপি শিপন হত্যা মামলায় পুলিশের তদন্তে আস্থা নেই চিকিৎসকদের। দাবি, বিচারবিভাগীয় তদন্তের। বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে জানান, মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটে ভর্তির সুপারিশ করা হলেও স্বজনরাই তাকে নিয়ে যান মাইন্ড এইড হাসপাতালে। অনির্দিষ্টকালের জন্য চেম্বার ও অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সাইকিয়াট্রিস্টস-বিএপি।
গত ৯ নভেম্বর রাজধানীর আদাবরে মাইন্ড এইড হাসপাতালে স্টাফদের নির্যাতনে মারা যান সিনিয়র এএসপি আনিসুল করিম শিপন।
দ্রুতই অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনতে শুরু করে পুলিশ। সবশেষ গত মঙ্গলবার জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুনকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশ দাবি করে, কমিশনের লোভে শিপনকে মাইন্ড এইডে পাঠান তিনি।
মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটে সংবাদ সম্মেলনে চিকিৎসকরা দাবি করেন, শিপনকে এখানেই ভর্তির পরামর্শ দেয়া হয়েছিল; তবে তা মানেননি স্বজনরা।
এ ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব সাইকিয়াট্রিস্টস। সামাজিকভাবে অপদস্ত ও অবমাননার নিন্দা জানান মনোরোগের চিকিৎসকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*