সিনিয়র এএসপি আনিসুল ইসলাম শিপন হত্যা মামলায় রেজিস্টার গ্রেফতারের প্রতিবাদে অস্থিরতা চলছে।

সিনিয়র এএসপি আনিসুল ইসলাম শিপন হত্যা মামলায় রেজিস্টার গ্রেফতারের প্রতিবাদে অস্থিরতা চলছে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটে। চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীদের আন্দোলনে দিনভর অবরুদ্ধ ছিলেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালকসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। যাতে ব্যাহত হয় চিকিৎসাসেবা।
কমিশনের লোভে ঘুমের ওষুধ দিয়ে সরকারি হাসপাতাল থেকে নামসর্বস্ব মাইন্ড এইড হাসপাতালে পাঠানো হয় পুলিশ কর্মকর্তা আনিসুলকে। এমন অভিযোগে মঙ্গলবার গ্রেপ্তার হন, জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিটের রেজিস্ট্রার ডা. আব্দুল্লাহ আল মামুন।
নির্যাতনে পুলিশ কর্মকর্তা হত্যা মামলায় সহকর্মী গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে ইন্সটিটিউট চত্বরে আন্দোলন শুরু করেন চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীরা। এতে বিপাকে পড়েন,দূর দুরান্ত থেকে আসা চিকিৎসাপ্রার্থীরা।
এক পর্যায়ে মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের পরিচালকসহ সিনিয়র ডাক্তারদের অবরুদ্ধ করা হয়। উর্ধ্বতন প্রশাসনকে না জানিয়ে ডা. মামুনকে গ্রেপ্তারে ক্ষোভ জানান পরিচালক অধ্যাপক ডা. বিধান রঞ্জন রায় পোদ্দারও।
দুপুরের পর কিছুটা স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। বহির্বিভাগে রোগি দেখা শুরু করেন চিকিৎসকরা। তবে বুধ ও বৃহস্পতিবার প্রাইভেট চেম্বার এবং অনলাইনে স্বাস্থ্যসেবা বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মানসিক রোগের চিকিৎসকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*