Update News

তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে, ময়না পাখি দেবে বলে এক শিশুকে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করেছে।

পাঁচ বছরের শিশুকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় উত্তপ্ত মৌলভীবাজার বিলাসছড়া চা-বাগান। ঘাতকের বিচার দাবীতে উত্তেজিত চা শ্রমিকরা বাগানের বস্তির দশটি বাড়ি জ্বালিয়ে দিয়েছে।
এর আগে মঙ্গলবার দুপুরে রিমনকে ময়না পাখির বাচ্চা দেয়ার কথা বলে চা-বাগানে ডেকে নিয়ে গলাকেটে হত্যা করে একই এলাকার ইউনুস। স্থানীয় শিবু গড়ের সিএনজি আটোরিকশার ব্যাটারী চুরির অভিযোগে সালিস বৈঠকে ইউনুসকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শিবুর শিশু সন্তানকে হত্যা করা হয় বলে ধারণা পুলিশের।
বুধবার (১ জুলাই) বিলাসছড়া এলাকায় সরেজমিনে গেলে পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান,
একই এলাকার চা শ্রমিক মো. ইউনুস কয়েক মাস আগে শিবু গড়ের সিএনজি আটোরিকশার
ব্যাটারি চুরি করে নিয়ে যায়। এ নিয়ে স্থানীয় লোকজন সালিস বৈঠকে ইউনুসকে
দোষী সাব্যস্ত করে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন। কিন্তু সে (ইউনুস) এ টাকা
দিতে অস্বীকার করে। এ ব্যাপারে সম্প্রতি শিশুর বাবা (শিবু গড়) টাকা না
দিলে তাকে থানায় মামলার ভয় দেখায়। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।
মঙ্গলবার দুপুরে শিবুর শিশুপুত্র রিমন গড় পাশের বাড়ি থেকে দুধ আনতে গেলে
ইউনুসের সাথে তার দেখা হয়। এ সময় রিমনকে ময়না পাখির বাচ্চা দেয়ার কথা বলে
চা-বাগানের ৪নং সেকশনে নিয়ে যায়। এরপর থেকে রিমনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো
না। এদিন সন্ধ্যায় চা-বাগানের ৪নং সেকশনের একটি জঙ্গল থেকে গলাকাটা অবস্থায়
তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*